বড় খবর

রাজ্যের মুখ্যসচিব হিসেবে আলাপনের আচরণ ‘বোকামি’র পরিচয়, ‘সব নিয়ম ভেঙেছেন তিনি’

Alapan Bandopadhyay IAS: “আইনকে মেনে চলা, এটিই তাঁর দায়িত্ব। মুখ্যমন্ত্রীর হয়ে কাজ করা তাঁর দায়িত্ব নয়। এই ঘটনায় কিন্তু চাকরি তিনি হারালেন, মুখ্যমন্ত্রী নয়।”

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, আলাপন, TMC news, Alapan Bandyopadhyay, Centre vs Bengal, TMC BJP clash, Alapan Bandyopadhyay case, Alapan Bandyopadhyay cyclone yaas review meeting, modi cyclone review meeting, Mamata Banerjee, Kolkata news, bengal news, indian express bangla, মুখ্য উপদেষ্টা আলাপন, মমতা, আলাপন মমতা,
আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল চিত্র

থামছেই না বিতর্ক। প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর কলাইকুন্ডায় ইয়াস পর্যালোচনা বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মুখ্য সচিন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপস্থিতি নিয়ে এখনও তরজা জারি দেশে। মুখ্যসচিবকে নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্যের এমন সংঘাত কার্যত বেনজির ঘটনাও। যদিও প্রাক্তন মুখ্যসচিবেরা জানিয়েছেন যে পেশাগত ক্ষেত্রে এই ঘটনা আইন লঙ্ঘন করার সমান।

আলাপনকাণ্ডে অবশ্য আমলাদের মতের মধ্যেই বিভাজন রয়েছে। কেউ নিয়েছেন পক্ষ, কেউ মত দিয়েছেন বিপক্ষে। কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রকের প্রাক্তন সচিব এবং কেন্দ্রীয় প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালের সদস্য পি কে বসু বলেন, ” ওঁর উচিত ছিল আইনকে মেনে চলা, এটিই তাঁর দায়িত্ব। মুখ্যমন্ত্রীর হয়ে কাজ করা তাঁর দায়িত্ব নয়। এই ঘটনায় কিন্তু চাকরি তিনি হারালেন, মুখ্যমন্ত্রী নয়।”

আরও পড়ুন, ‘প্রধানমন্ত্রীর পদটিকে সম্মান করুন’, বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে ‘খোঁচা’ আসামের মুখ্যমন্ত্রীর

পি কে বসুর কথায়, “একজন আইএএস অফিসারের কোনও বস থাকে না। সংবিধান, নিজের বিবেকই তাঁর বস। কিন্তু দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রীকেও অপমান করলেন এই কাজ করে। ইয়াস দুর্যোগে বাংলা আরও অনেকটা টাকা পেতে পারত কিন্তু হল না সেটা। বাংলার মানুষেরই ক্ষতি হল।”

বিহার পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান পদ থেকে অবসর নেওয়া এন কে আগরওয়াল বলেন, “রাষ্ট্রপতি অল ইন্ডিয়া সার্ভিস অফিসার নিয়োগ করেন। প্রধানমন্ত্রীর মর্যাদাকে রক্ষা করা মুখ্যসচিব ও কোনও রাজ্যের ডিজিপির কর্তব্য। প্রধানমন্ত্রীর অবমাননা করে তিনি আদতে নিজের কাজ দিয়ে রাষ্ট্রপতিকে অবমাননা করেছেন।”

আরও পড়ুন, করদাতাদের টাকা লুটে আলাপনকে বেতন দেবেন মমতা, বিস্ফোরক দাবি শুভেন্দুর

দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যসচিব বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর পর্যালোচনা সভায় অংশ না নিয়ে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যসচিব হিসেবে ‘বোকামির’ পরিচয় দিয়েছেন। তিনি রাজ্যের মুখ্য সচিব, মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নন। নিয়ম প্রোটোকল সব নিয়ম ভেঙেছেন। এই কাজ তরুণ অফিসারদের কাছে কী বার্তা পাঠাতে পারে সেটাও ভেবে দেখা উচিত।”

অন্যদিকে, মুখ্যসচিবের অবসর গ্রহণের দিনেই তাঁকে শোকজ নোটিস পাঠিয়েছে কেন্দ্র। যা নিয়ে রাজ্য ও কেন্দ্রের প্রাক্তন শীর্ষ আমলারা কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। কেন্দ্রের পদক্ষেপকে নিয়মবিরুদ্ধ, বিরক্তিকর এবং অপ্রত্যাশিত বলে ব্যাখ্যা করেছেন তাঁরা।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Alapan bandopadhyay breakdown federal structure foolish decision former chief secretaries say

Next Story
১০ দিনের রুদ্ধশ্বাস লড়াই! কোভিডজয়ী ১৮ মাসের একরত্তিcoronavirus
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com
X