scorecardresearch

বড় খবর

‘এরপর অনেক অনুষ্ঠান বাড়িতে বসে দেখতে হবে’, ঝাঁঝালো ভাষায় মমতাকে ধুলেন শুভেন্দু

আবারও মুখ্যমন্ত্রীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ বিরোধী দলনেতার।

‘এরপর অনেক অনুষ্ঠান বাড়িতে বসে দেখতে হবে’, ঝাঁঝালো ভাষায় মমতাকে ধুলেন শুভেন্দু
আাবারও শুভেন্দু অধিকারীর নিশানায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আবারও মুখ্যমন্ত্রীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর। ”নন্দীগ্রামে হারার যন্ত্রণা ভুলতে পারছেন না। এরপর অনেক অনুষ্ঠান হবে। সেটা বাড়িতে বসে ওঁকে দেখতে হবে।” হাওড়ায় বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উদ্বোধনী মঞ্চের বিতর্ক ঢাল করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বেনজির আক্রমণ শুভেন্দু অধিকারীর।

শুক্রবার নাটকীয়তায় ভরপুর ছিল বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উদ্বোধনী মঞ্চ। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের অনুষ্ঠানের দিনের ঘটনারই পুনরাবৃত্তি এদিন হাওড়ায়। ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখেই উঠল জয় শ্রীরাম স্লোগান। এদিন হাওড়ায় মুখ্যমন্ত্রী পৌঁছতেই ওঠে জয় শ্রীরাম স্লোগান। বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী মঞ্চেই ওঠেননি। জয় শ্রী রাম স্লোগানের পাল্টা এদিন তৃণমূল জিন্দাবাদ স্লোগানও শোনা যায়। পরিস্থিতি মুহূর্তেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

আরও পড়ুন-মমতাকে ‘জয় শ্রীরাম’: ‘ওরা সৌজন্যের অযোগ্য’, দাবি ফিরহাদের, ‘রক্তে রাম’- পাল্টা বললেন লকেট

তবে মুখ্যমন্ত্রীকে বুঝিয়ে এদিন মঞ্চে তোলার চেষ্টা করতে দেখা যায় রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবকে। যদিও রেলমন্ত্রীর আবেদনেও শেষমেশ সাড়া দেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যসচিবকে সঙ্গে নিয়ে মূল মঞ্চের নীচেই এদিন বসেছিলেন তিনি। এদিন ভার্চুয়ালি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের শুভ সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মায়ের প্রয়াণের জেরে কলকাতায় আসতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী। বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উদ্বোধন-সহ এরাজ্যে এদিন তাঁর প্রকল্প উদ্বোধনের একগুচ্ছ কর্মসূচি ভার্চুয়ালিই সেরেছেন নমো।

আরও পড়ুন- ‘আপনার মা আমারও মা’, দ্বন্দ্ব দূরে ঠেলে মাতৃহারা মোদীর পাশে মমতা

এদিকে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হাওড়ায় বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উদ্বোধনী মঞ্চে না ওঠায় তাঁকে তুমুল আক্রমণ শানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি এদিন বলেন, ”কলাইকুণ্ডায় যা করেছিলেন এখানেও তা করেছেন। নন্দীগ্রামে হারার যন্ত্রণা ভুলতে পারছেন না। এরপর এমন অনেক অনুষ্ঠান হবে। সেটা বাড়িতে বসে ওঁকে দেখতে হবে। উনি বিরোধী দলনেতাকে স্বীকার করেন না। অত্যন্ত নিম্নমানের নিম্নরুচির একজন রাজনীতিবিদ। বাংলার ৪০ হাজার লোক শহিদ হয়ে ওঁকে মুখ্যমন্ত্রী বানিয়েছেন। এর চেয়ে দুর্ভাগ্যজনক আর কিছু হতে পারে না।”

আরও পড়ুন- ডানকুনিতে দাঁড়াতেই হুড়মুড়িয়ে উঠে পড়ল অজস্র মানুষ, প্রথম দিনেই চরম দুর্ভোগের মুখে বন্দেভারত

বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় এদিন বলেন, ”বন্দে ভারত ট্রেন দেখার পরেই স্লোগান শুরু হয়েছে। নরেন্দ্র মোদীর ছবি পর্দায় দেকার পর স্লোগান শুরু হয়। এটা আমাদের রক্তে। এটা আমাদের ভেতর থেকে বেরোয়। এর সঙ্গে রাজনীতি জোড়া উচিত নয়।”

উল্লেখ্য, এর আগেও ২০২১-এর ২৩ জানুয়ারি নেতাজির জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের সরকারি অনুষ্ঠানে জয় শ্রীরাম স্লোগান ওঠে। প্রধানমন্ত্রীর সামনেই দর্শকাসন থেকে ওঠে জয় শ্রীরাম স্লোগান। বক্তৃতা না দিয়ে পোডিয়াম থেকে নেমে গিয়েছিলেন মমতা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Suvendu adhikari criticize mamata banerjee