scorecardresearch

এবার গড়ে দাঁড়িয়েই তৃণমূলের যুবরাজকে ঝাঁঝালো জবাবে মুখিয়ে শুভেন্দু, নামছেন একুশেই

কাঁথির মাঠে দাঁড়িয়েই অভিষেককে জবাব দিতে মুখিয়ে শুভেন্দু।

এবার গড়ে দাঁড়িয়েই তৃণমূলের যুবরাজকে ঝাঁঝালো জবাবে মুখিয়ে শুভেন্দু, নামছেন একুশেই
অভিষেককে জবাব দিতে পাল্টা সভা শুভেন্দুর।

অভিষেককে জবাব দিতে এবার পাল্টা কাঁথিতেই সভা করতে চান শুভেন্দু। রাজ্য বিজেপি সূত্রের খবর, কাঁথিতে আগামী ২১ ডিসেম্বর সভা করতে পারেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। গত শনিবার শুভেন্দু অধিকারীর বাড়ির কাছে কাঁথির মাঠে সভা করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বিরোধী দলনেতা ও তাঁর পরিবারকে বিঁধে ঝাঁঝালো আক্রমণ শানিয়েছিলেন তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন কম্যান্ড। এবার তাই কাঁথিতে দাঁড়িয়েই তৃণমূল নেতাকে পাল্টা জবাব দিতে চান শুভেন্দু অধিকারী।

হাইভোল্টেজ শনিবারে এক দফায় জবাব-পাল্টা জবাবের ‘খেলা’ দেখেছে গোটা রাজ্য। ‘শান্তিনিকেতন’ বনাম ‘শান্তিকুঞ্জ’-এর লড়াইয়ে টানটান ছিল শনিবাসরীয় বারবেলা। একদিকে কাঁথিতে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বাড়ির কাছে বিশাল সমাবেশ করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। উল্টোদিকে, অভিষেকের গড় ডায়মন্ড হারবারে পাল্টা সভা করে তৃণমূলের যুবরাজকেও চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারীও।

আরও পড়ুন- মোদীর সঙ্গে আলাদা করে কথা বলবেন? দিল্লি যাওয়ার আগেই উত্তর দিয়ে গেলেন মমতা

তবে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এবার সুর আরও চড়া করতে চান নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক। গত শনিবার কাঁথিতে দাঁড়িয়ে শুধু শুভেন্দু অধিকারী নয়, অধিকারী বাড়ির অন্য সদস্যদেরও তুলোধনা করতে শোনা গিয়েছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তৃণমূল সাংসদ সেদিন বলেছিলেন, ”শুভেন্দু অধিকারী হামেশাই বলেন, অধিকারী পরিবার না-থাকলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হতে পারতেন না। আমি বলি আপনারা গিয়ে ভালোই হয়েছে। ২০১১ সালে যখন তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় এসেছিল তখন ২১১টা সিট পেয়েছিল। আর, ২০২১ সালে আধাসামরিক বাহিনী দিয়ে যখন নির্বাচন হল, তখন তৃণমূল কংগ্রেস ২১৫টা আসন পেয়েছে। কারণ, তখন তৃণমূল কংগ্রেসে অধিকারী পরিবার ছিল না।’ এছাড়াও একাধিক ইস্যুতে অভিষেক সেদিন আক্রমণ শানিয়েছিলেন বিরোধী দলনেতাকে।

আরও পড়ুন- দিঘা যাচ্ছেন? মানতেই হবে এই নিয়মগুলি, অন্যথায় কপালে নাচছে ঘোর ‘বিপদ’

সেদিনই পাল্টা সভা করে ডায়মন্ড হারবারে অভিষেককে এক দফায় জবাব দিয়েছেন শুভেন্দু। তবে তাতেও পুরোপুরি সন্তুষ্ট নন নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক। এবার তাই কাঁথির মাঠেই সভা করতে চান তিনি। সেখান থেকেই অভিষেকের সব আক্রমণের জবাব দিতে মুখিয়ে রয়েছেন রাজ্য বিজেপির অন্যতম এই শীর্ষ নেতা। বিজেপি সূত্রের খবর, আগামী ২১ ডিসেম্বর কাঁথিতে সভা করতে পারেন বিরোধী দলনেতা। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই শুভেন্দু অধিকারীর সভা নিয়ে প্রস্তুতি বৈঠকও হয়েছে।

আরও পড়ুন- বেনিয়ম করে স্কুলে চাকরি, নাম সামনে আসতেই চূড়ান্ত অবসাদ, চরম সিদ্ধান্ত মহিলার

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Suvendu adhikri will host meeting at kanthi on 21 december