‘আগামী বছরের জুন মাস অবধি বিনামূল্যে রেশন দেব’, মোদীকে কটাক্ষ করে ঘোষণা মমতার

রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বাড়বেই সে কথা মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন আগেই।অতএব লকডাউনের সময়সীমাও বাড়বে। তাই বর্ধিত লকডাউনে বাংলার মানুষের যেন অন্নাভাব না থাকে, সেই কথা মাথায় রেখে আগামী বছরের জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা মঙ্গলবার…

By:
Edited By: Pallabi Dey Kolkata  Updated: June 30, 2020, 07:54:20 PM

রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বাড়বেই সে কথা মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন আগেই।অতএব লকডাউনের সময়সীমাও বাড়বে। তাই বর্ধিত লকডাউনে বাংলার মানুষের যেন অন্নাভাব না থাকে, সেই কথা মাথায় রেখে আগামী বছরের জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠক থেকে ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।কেন্দ্রের উপর নির্ভর না করেই জীবনযাপন করতে পারবে বাংলা এই আশ্বাসও দেন তিনি।

এদিন নবান্নের বৈঠক থেকে মমতা বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নভেম্বর অবধি করেছেন তো। আমরা আগামী বছর জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেব। ওনারা আজ দেবে আরেক মাস দেবে না সেটা যেন না হয়।ওনারা যে রেশন দিচ্ছে বাংলায় ৪০ শতাংশ লোক সেটা পাচ্ছেন না। আমরা রাজ্যের ১০ কোটি লোকদের রেশন দিচ্ছি। সেপ্টেম্বরের পর থেকে ১০ কোটিকেই দিতে পারব কি না সেটা ভেবে দেখব। খাদ্যসাথী যারা পাচ্ছে তাঁরা পাবেন। বাদ বাকি বিষয় কথা বলে ঠিক করব”।

আরও পড়ুন, আনলকের দ্বিতীয় পর্যায়ে বিশেষ ছাড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

মঙ্গলবার মোদীর ভাষণ শেষ হতেই নবান্নে পাল্টা ঘোষণা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “রাজ্যে ১০ কোটি মানুষ জুন পর্যন্ত ফ্রি রেশন পাবে। কেন্দ্রের থেকেও ভাল চাল, আটা পাবেন সাধারণ মানুষ। কেন্দ্র যে চাল দেয় সেই চাল ভাল না। আমাদের চালের গুণগত মান ভাল। কারণ আমরা কৃষকদের থেকে সরাসরি চাল কিনি। কেন্দ্র ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার থেকে কেনে।’

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, “প্রথম থেকেই সরকারের নজর ছিল লকডাউনের ফলে কোনও মানুষের যেন খাদ্যাভাব না থাকে। এর জন্য শুধু কেন্দ্রীয় সরকারই নয়, রাজ্য সরকারগুলিও কাজ করেছে। এগিয়ে এসেছেন বহু মানুষ। সামনেই উৎসবের মরসুম। সেই সময় পর্যন্ত যাতে কোনও মানুষের খাদ্যাভাব না থাকে তার জন্য কেন্দ্র ফ্রি রেশন আরও পাঁচ মাসের জন্য চালু করল। এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ৮০ কোটি মানুষ সুবিধা পাবেন। প্রতি মাসে প্রতি ব্যক্তির জন্য ৫ কেজি করে চাল অথবা গম পাওয়া যাবে। এছাড়াও পরিবার পিছু এক কেজি করে ছোলা দেওয়া হবে। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের অতিরিক্ত খরচ হবে ৯০ হাজার কোটি টাকা। আগে যে ফ্রি রেশন দেওয়া হয়েছে সেটাও যোগ করলে মোট খরচের পরিমাণ দাঁড়াবে প্রায় দেড় লক্ষ কোটি টাকা।”

আরও পড়ুন, ‘কথা না শুনলে সরকারই চালাবে বেসরকারি বাস’, চরম হুঁশিয়ারি মমতার

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে মার্চ মাসের ২৫ তারিখ থেকে লকডাউন শুরু হয় দেশে। সেই সময় মোদী সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয় এপ্রিল, মে ও জুন মাসে দেশের সব নাগরিককে রেশনে বিনামূল্যে চাল বা গম দেওয়া হবে। আজ সেই তিনমাসের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই আগামী পাঁচ মাস সেই একই সুবিধা বহাল রাখার কথা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the West-bengal News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

West bengal chief mamata banerjee declares free ration upto june 2021

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
BIG NEWS
X