বড় খবর

নেটপাড়ায় ফের জনপ্রিয় রানুর ‘আশিকি মে তেরি’

হিমেশ রেশমিয়ার ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’ ছবিতে কাজ প্লে-ব্যাক করেছেন রানু মন্ডল। এবার ভাইরাল হল ‘আশিকি মে তেরি’। তাদের সুরের মূচ্ছর্নায় ভাসবেন দর্শক।

রানু মন্ডল। ফোটো- ইনস্টাগ্রাম
রানু মন্ডল। নামটা নেটদুনিয়ায় ভাইরাল বেশ কিছু মাস ধরেই। রানাঘাট স্টেশনে গান গাওয়ার ভিডিও থেকে শুরু, জার্নিটা এখনও চলছে। হিমেশ রেশমিয়ার ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’ ছবিতে কাজ প্লে-ব্যাক করেছেন রানু মন্ডল। হিমেশ রেশমিয়ার ‘হ্যাপি হার্ডি এন্ড হীর’ ছবির গান ‘তেরি মেরি কাহানি’ দিয়েই বলিউডে ডেবিউ করেছেন ইন্টারনেট সেনসেশন রানু মন্ডল। এবার ভাইরাল হল ‘আশিকি মে তেরি’। তাদের সুরের মূচ্ছর্নায় ভাসবেন দর্শক। এদিন প্রকাশ্যে এল পুরো গান।

গানের পাশাপাশি ছবিতে অভিনয়ও করেছেন হিমেশ রেশমিয়া, বিপরীতে সোনিয়া মান। হিমেশ রেশমিয়া রানুর গান রেকর্ডিংয়ের ভিডিও শেয়ার করেছিলেন নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে। তবে এই গানটা ছাড়াও ‘আদত’ এবং ‘তেরি মেরি কাহানি’ রেকর্ড করেছেন রানু মন্ডল।

আরও পড়ুন, ‘যৌন-নেশামুক্তি কেন্দ্রে যান’, অনু মালিকের উদ্দেশে বিস্ফোরক সোনা

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে রানু বলেছিলেন, ”এই প্রথমবার কেউ আমায় গান শেখাল। গানের টেকনিক্যালিটিস আমার জানা ছিলনা। পরিবারের সদস্যের মতো করেই শিখিয়েছেন হিমেশজি এবং জীবনের সবথেকে বড় সুযোগটা দিয়েছেন। ভগবানকে অশেষ ধন্যবাদ স্বপ্নপূরণের জন্য। জীবনে কোনওদিন এত ভালবাসা পাইনি। খোলা চোখে স্বপ্ন দেখলেও কোনদিন ভাবতে পারিনি যে বলিউডে প্লেব্যাক করতে পারব।”

রানাঘাট রেল স্টেশনে রানুর গলায় ‘এক প্যায়ার কা নগমা হ্যায়’-গানটি রেকর্ড করেছিলেন এক পথচারী। নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে সেই ভিডিও পোস্ট করার পরই ভাইরাল হন রানু মন্ডল, পরিচিত হন ‘লতাকণ্ঠী’ নামে। এরপরেই ডাক পান মুম্বইয়ের রিয়্যালিটি শোয়ে। সেই মঞ্চেই তাঁর গান শুনে হিমেশ রেশমিয়া বলেছিলেন, তাঁর ছবিতে প্লে ব্যাক করার কথা। নিজের কথা রেখেছেন গায়ক-সঙ্গীতপরিচালক

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Ashiqui mein teri happy hardy and heer himesh reshammiya ranu mondal161965

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com