scorecardresearch

বড় খবর

‘মমতা কতটা নীচে নামতে পারেন দেখা গেল’, কেষ্টর পুলিশ হেফাজতে তিতিবিরক্ত সেলিম

অনুব্রতর পুলিশ হেফাজত নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে বেনজির আক্রমণ সেলিমের।

‘মমতা কতটা নীচে নামতে পারেন দেখা গেল’, কেষ্টর পুলিশ হেফাজতে তিতিবিরক্ত সেলিম
মুখ্যমন্ত্রীকে বেনজির আক্রমণ সেলিমের।

খুনের চেষ্টার মামলায় অনুব্রতর পুলিশ হেফাজত নিয়ে এবার মুখ্যমন্ত্রীকে বেনজির আক্রমণ সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিমের। ”অনুব্রতকে বাঁচাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কতটা নীচে নামতে পারেন দেখা গেল”। মঙ্গলবার মুর্শিদাবাদে এই মন্তব্য করেছেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম। ”অপরাধীদের শাস্তি দেওয়ার বদলে বাঁচাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী।” মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধে এদিন এমনই বলেছেন সেলিম।

ঘটনাটা এক বছর আগেকার। তা নিয়ে অভিযোগ জমা পড়ল সদ্য। সোমবারই অনুব্রতকে দিল্লি নিয়ে গিয়ে জেরা করায় ইডি-কে ছাড়পত্র দিয়েছে রাউস অ্যাভিনিউ কোর্ট। ঠিক তার পরের দিনই এক বছর আগেকার এইটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশি পদক্ষেপ কেষ্টর বিরুদ্ধে। আদালতে তোলা হলে সটান পুলিশ হেফাজতে পাঠালেন বিচারক। আপাতত দিন সাতেক দুবারজপুর থানাতেই থাকবেন বীরভূমের দোর্দণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল।

এদিকে কেষ্টকে দিল্লি নিয়ে যেতে ইডি গতকাল ছাড়পত্র পাওয়ার পরেই আজ রাজ্য পুলিশের এই পদক্ষেপের কড়া সমালোচনায় বিরোধীরা। দিল্লি যাত্রা এড়াতে গোটা একটা রাজ্যের প্রশাসন রাজনৈতিক এক নেতার পাশে দাঁড়িয়ে পড়েছে বলে অভিযোগে শোরগোল ফেলে দিয়েছে বিজেপি, বাম, কংগ্রেসের নেতারা। বিষয়টি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী তথা পুলিশমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় বিঁধেছেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিমও।

আরও পড়ুন- কেষ্টর নামে মামলা, শিবঠাকুরকে সাসপেন্ড করল তৃণমূল

সেলিম এদিন বলেন, ”অনুব্রতকে বাঁচাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কতটা নীচে নামতে পারেন দেখা গেল। এক বছর আগের ঘটনা বলছে। সেটা ধরে নিলে তখন গুড় বাতাসা, পুলিশকে বোমা মারবে, খুন, জখমের মতো বিষয় ছিল। পুলিশ তখন কেন সক্রিয় হল না। ঠিক যে মুহূর্তে জেরার জন্য দিল্লি নিয়ে যাওয়া হবে তখনই পুলিশ ওকে স্বস্তি দিতে এগিয়ে এল। পুলিশমন্ত্রীকেই এর জবাব দিতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী কোথায় অপরাধীদের শাস্তি দেবেন, তা না করে বাঁচাচ্ছেন।”

আরও পড়ুন- দলের নেতাকে খুনের চেষ্টা, অনুব্রতর ৭ দিনের পুলিশ হেফাজত, দিল্লি-যাত্রা রুখতে কৌশল?

প্রসঙ্গত, সোমবারই অনুব্রত মণ্ডলকে দিল্লি নিয়ে গিয়ে জেরা করায় ইডিকে ছাড়পত্র দিয়েছে রাজধানীর রাউস অ্যাভিনিউ কোর্ট। ঠিক তার পরের দিনেই কেষ্টকে নিয়ে নাটকীয় মোড় এরাজ্যে। খুনের চেষ্টার অভিযোগে দলেরই এক কর্মীর করা মামলায় পুলিশ হেফাজতে অনুব্রত মণ্ডল। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বীরভূমের দুবারজপুরের বালিগিরি পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান শিবঠাকুর মণ্ডলকে মারধর, খুনের চেষ্টার অভিযোগে মঙ্গলবার দুবরাজপুর আদালত কেষ্ট মণ্ডলকে সাত দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে।

আরও পড়ুন- মামলার ‘মালা’ রাজ্যের, একান্তে শাহকে পেয়ে গুচ্ছ নালিশ শুভেন্দুর, কথা মোদীর সঙ্গেও

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Md selim criticize cm mamata banerjee regarding anubrata police custody