Various Health Complications

Result: 1- 17 out of 20 Bangla Articles Found
গ্যাসের সমস্যা কমাতে ভরসা রাখুন আয়ুর্বেদেই

গ্যাসের সমস্যা কমাতে ভরসা রাখুন আয়ুর্বেদেই

বছরের সারা সময়েই এই সমস্যার সম্মুখীন হন। তবে গ্যাসের সমস্যা ওষুধ খেয়ে না কমিয়ে প্রাকৃতিক উপায়ে কমানো সম্ভব গ্যাসের এই সমস্যা।

স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে কী করবেন?

স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে কী করবেন?

এর কারণ হিসেবে দায়ী করছেন অনিয়মিত জীবন যাপনকেই। লাইফস্টাইলে কিছু পরিবর্তন আনলেই হার্ট অনেকটা সুস্থ থাকবে।

করোনাকালে নিয়ন্ত্রণে থাক ডায়াবেটিস, কিন্তু কীভাবে?

করোনাকালে নিয়ন্ত্রণে থাক ডায়াবেটিস, কিন্তু কীভাবে?

প্রথম থেকেই স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে জানান হয় ডায়াবেটিস এবং হাইপারটেনসন যাঁদের রয়েছে এই ভাইরাস সংক্রমণের ক্ষেত্রে তাঁদের ঝুঁকি অনেক বেশি।

করোনা আবহে বন্ধ নাকের সমস্যায় ভুগছেন? রইল সমাধান সূত্র

করোনা আবহে বন্ধ নাকের সমস্যায় ভুগছেন? রইল সমাধান সূত্র

করোনা আবহে এমন উপসর্গ থাকলেও সংক্রমণের ভয়ও বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। তবে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। আপনার জন্য রইল কিছু প্রাথমিক টিপস।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে নিয়মিত পান করুন হলুদ-দুধ

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে নিয়মিত পান করুন হলুদ-দুধ

হলুদের প্রধান উপাদান কারকিউমিন (Curcumin) নামক কম্পাউন্ড অ্যান্টি অক্সিডেন্ট গুণাবলীর জন্য সুখ্যাত। এর ফলে হলুদ আয়ুর্বেদ ঔষধে শত শত বছর ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

হাঁটুর ব্যথা ভ্যানিশ হবে এই সহজ উপায়েই

হাঁটুর ব্যথা ভ্যানিশ হবে এই সহজ উপায়েই

সাধারণত বয়স্করা হাঁটুর সমস্যায় বেশি ভোগেন। তবে যে কারও এ সমস্যা হতে পারে। এই সমস্যার জন্য সবসময় ওষুধ না খেয়ে ঘরোয়া পদ্ধতিতেও এই ব্যথা নিরাময়ের চেষ্টা করা যেতেই পারে।

বোকা বাক্সে বন্দি জীবন? হার্ট অ্যাটাক হতে পারে যখন তখন

বোকা বাক্সে বন্দি জীবন? হার্ট অ্যাটাক হতে পারে যখন তখন

যদি আপনার কাজ এমন হয়, যেখানে আপনাকে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকতে হয়, তবে ভারী শরীরচর্চা বাড়ানো দরকার। সেক্ষেত্রে কাজের জায়গা থেকে বাড়ি ফিরে শুয়ে বসে টিভি দেখলে হবে না"

World Diabetes Day, 2019:  ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে রোজকার মেনুতে রাখুন এই সব খাবার

World Diabetes Day, 2019: ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে রোজকার মেনুতে রাখুন এই সব খাবার

আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানে ডায়াবেটিস তথা দেহে রক্ত শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে অনেক ওষুধ আবিষ্কার হয়েছে। কিন্তু শুধু লাইফস্টাইল এবং খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন এনে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় ব্লাড সুগার। 

দিনে ৯ ঘণ্টা বসে কাজ, অসময়ে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন না তো?

দিনে ৯ ঘণ্টা বসে কাজ, অসময়ে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন না তো?

একটানা বসে থাকলে শরীরের যে অঙ্গগুলি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়, সেগুলি হল- মাথা, হাত, পা, পায়ের পাতা, ঘাড়, পিঠ, ফুসফুস, পাকস্থলী এবং হার্ট।

হাঁটুর সমস্যা? ঘরোয়া পদ্ধতিতে আরাম পাবেন কোন উপায়ে?

হাঁটুর সমস্যা? ঘরোয়া পদ্ধতিতে আরাম পাবেন কোন উপায়ে?

গরম জলের মধ্যে ১০ থেকে ১৫ মিনিট হাঁটু ডুবিয়ে রাখুন। হট ওয়াটার ব্যাগও ব্যবহার করতে পারেন। ব্যথা নিরাময়ে দিনে দুই থেকে তিনবার এটা করতে হবে।

কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হলে কী করবেন?

কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হলে কী করবেন?

হঠাৎ হওয়া কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট এবং হার্ট অ্যাটাক কিন্তু এক নয়, অনেকেই কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট বা হার্ট অ্যাটাকের পার্থক্যটা বোঝেন না, ফলে সমস্যায় পড়ে ভুল পদক্ষেপ নিয়ে নেন রোগীর পরিবার।

নিয়ম না মেনে অ্যান্টিবায়োটিক খেলে ঘোর বিপদ

নিয়ম না মেনে অ্যান্টিবায়োটিক খেলে ঘোর বিপদ

অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার আমাদের ভয়ঙ্কর পরিণতির দিকে ঠেলে দিতে পারে। অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ খাওয়া নিয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের ডাঃ রাজা ভট্টাচার্য।

কোমরে ব্যথা, ঝিমঝিম ভাব? ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন নয় তো?

কোমরে ব্যথা, ঝিমঝিম ভাব? ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন নয় তো?

এই সমস্যাটি মহিলা ও পুরুষ উভয়ের মধ্যে দেখা গেলেও মহিলাদের মধ্যে ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশনে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি।

সামান্য কয়েকটি অভ্যেস বদলালেই সুস্থ জীবন আপনার অপেক্ষায়

সামান্য কয়েকটি অভ্যেস বদলালেই সুস্থ জীবন আপনার অপেক্ষায়

লাইফস্টাইলে সামান্য পরিবর্তন আনলে একটা সুস্থ জীবন যাপন করা খুব কঠিন নয়। তবে সবচেয়ে আগে সচেতন হওয়া দরকার।

‘স্মার্ট’ পাজামা পরে ঘুমোতে যান, ভালো হবে ঘুম

‘স্মার্ট’ পাজামা পরে ঘুমোতে যান, ভালো হবে ঘুম

স্মার্ট পাজামা, যা সরাসরি হৃদস্পন্দন, শ্বাসপ্রশ্বাস এবং আপনার ঘুমের গতিবিধি মনিটর করবে। পাশাপাশি কোন পরিস্থিতিতে আপনার ভালো ঘুম হবে তারও বন্দোবস্ত করবে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে আক্ষরিক অর্থেই ভাল দিবানিদ্রা

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে আক্ষরিক অর্থেই ভাল দিবানিদ্রা

সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের দু'ভাগে ভাগ করা হয়েছিল। একদল দিবানিদ্রা নিতেন নিয়মিত, আরেক দল নিতেন না। সমীক্ষা শেষে দেখা গেল যারা দিনের মধ্যে কিছুটা সময় ঘুমিয়েছেন, তাদের সিস্টোলিক প্রেশার ৫.৩ মিমি. পারদ সমান কমেছে। 

আরও আরও আরও যাক প্রাণ?

আরও আরও আরও যাক প্রাণ?

ছয় মাসের মধ্যে ঘটে যাওয়া দুই অকালমৃত্যু প্রশ্নের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছে রাজ্যের বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের জন্য তৈরি হওয়া 'স্পেশ্যাল' স্কুলগুলিকে। প্রশ্ন তুলে দিয়েছে এই প্রতিষ্ঠানগুলির পরিকাঠামো নিয়ে।

Advertisement

ট্রেন্ডিং
BIG NEWS
X